• শুক্রবার ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম


    ধুরন্ধর মোকলেছ মেম্বার

    আক্কেলপুর (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি | ১১ আগস্ট ২০২০ | ৩:১৪ অপরাহ্ণ

    ধুরন্ধর মোকলেছ মেম্বার

    মোকলেছুর রহমান (৬০)। তিনি জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার তিলকপুর ইউপির ৭ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য। ক্ষমতাশীন দলের লোকজনের সাথে তার রয়েছে উঠাবসা। আর এই সুবাদেই সে গ্রামের লোকজনদের কাছে প্রভাব খাটাতেন। তার বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে মিথ্যা মামলাসহ বিভিন্ন হুমকি ধুমকি দেয় লোকজনদের। ভয়ে তার বিপক্ষে কথা বলার সাহস পান না কেউ।

     


    তবে ধুরন্ধর মোকলেছ মেম্বার এবার মামলার আসামী হয়েছেন। তার সাথে ছেলে শাহীন হোসেন (৩৬) ছেলের বউ সীমা খাতুনও(৩২) আসামী হয়েছেন। গত কাল সোমবার উপজেলার পুরঘরদীঘী গ্রামের তাসনিয়া জাহিন সুমি নামে এক  মেয়ে বাদি হয়ে থানায় মামলাটি করেন।

     


    মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৩ আগষ্ট পুরঘরদীঘী গ্রামের বিদ্যুৎ সংযোগের ট্যান্সর্ফমার নষ্ট হয়। এতে ওই গ্রামে টানা তিন দিন বিদ্যুৎ বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে পড়ে গ্রামের লোকজন। মোকলেছ মেম্বার ওই গ্রামে বিদ্যুতের ট্যান্সর্ফমার ঠিক করে দেওয়ার কথা বলে  গ্রামবাসীদের টাকা আত্নসাৎ করার চেষ্টা করে। বিষয়টি টের পেয়ে গ্রামবাসীসহ মামলার বাদী তাসনিয়া জাহিন সুমি মোকলেছ মেম্বারের কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করে। এতে মোকলেছ মেম্বার ক্ষিপ্ত হন। ওই ঘটনার  জের ধরে গত ৭ আগষ্ট সকালে মামলার আসামী মোকলেছ মেম্বার, তার ছেলে শাহীন হোসেন ও ছেলের বউ সীমা খাতুন গ্রামের চলাচরের রাস্তায় বেড়া দিয়ে চলাচলে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে। গ্রামবাসীরা বিষয়টি পুলিশকে জানালে ঘটনাস্থলে পুলিশের সহায়তায় মামলার আসামীরা রাস্তার বেড়া অপসারণ করে দেয়। এসময় মামলার আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে মামলার বাদী সুমিকে মারপিট করে তার মুঠোফোন কেড়ে নেয়। এঘটনায় গত সোমবার তাসনিয়া জাহিন সুমি বাদি হয়ে থানায় ওই তিনজনকে আসামী করে মামলা করেন।

     


    মামলার বাদি তাসনিয়া জাহিন সুমি বলেন, ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চেয়ে তিনজনকে আসামী করে থানায় মামলা করেছি।

     

    তিলকপুর ইউপির ৭ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য মোকলেছুর রহমান বলেন, গ্রাম বাসীদের সাথে আমাদের কোন বিরোধ নেই। গ্রামে বিদ্যুতের ট্যান্সর্ফমার নষ্ট হয়েছিল, আমি চেষ্টা করেও বিদ্যুৎ চালু করতে পারিনি। আমি ও আমার পরিবারের লোকজন গ্রামের কোন রাস্তা বন্ধ করে দেয় নি। এবং কোন লোকজনের সাথে ঝামেলা হয়নি। থানায় সুমি নামে মেয়েটি যে মামলা করেছে তা সম্পর্ূণ মিথ্যা বানোয়াট।

     

    তিলকপুর ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম মাহবুব সজল বলেন, ওই গ্রামে ঈদের পরে বিদ্যুৎ বন্ধ ছিল। গ্রামটির মধ্যেদিয়ে আর একটি পাড়ায় বিদ্যুতের তার টানা নিয়ে দুই পক্ষর মধ্যে একটু ঝামেলা হয়ে এক পক্ষ গ্রামের মধ্যে অপর পক্ষের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছিল। পরে সেটি পুলিশের সহযোগীতায় নিরসন হয়। ওই সময় মোকলেছ মেম্বারের ছেলে সুমি নামের একটি মেয়ের মোবাইল ফোন কেড়ে নিয়েছিল। পরে নাকি সেটি ফেরৎ ও দিয়েছে। এর পরে শুনছি মেয়েটি নাকি মামলা করেছে।

     

    আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) আব্দুল লতিফ খাঁন বলেন, এঘটনায় তাসনিয়া জাহিন সুমি নামে একটি মেয়ে বাদি হয়ে ইউপি সদস্য মোকলেছ, তার ছেলে শাহীন ও ছেলে বউ সুমীর নামে মামলা করেছে।

     

    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ৩:১৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০

    seradesh.com |

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮ 
    advertisement

    সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : সাদেকুল ইসলাম | সম্পাদক : আবু সাঈদ

    ঢাকা অফিসঃ বাড়ি #৫ (১ম তলা) রোড #০ কল্যাণপুর, ঢাকা-১২০৭, অফিস ঢাকা রোড সান্তাহার ৫৮৯১
    ফোন : 01767 938324 (মফস্বল) 01830 359796 (সম্পাদক) | E-mail : seradeshmoff@gmail.com, news@seradesh.com

    ©- 2021 seradesh.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।