• শনিবার ১৯শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৫ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম


    নদীর পারে আজ হাঁকডাক নেই

    মাহির আমির মিলন (জবি) | ১০ জুন ২০২১ | ১২:৩১ অপরাহ্ণ

    নদীর পারে আজ হাঁকডাক নেই

    মাইকেল মধুসূদনের ‘কপোতাক্ষ নদ’ কিংবা জীবনানন্দ দাশের ‘রূপসী বাংলা’ যার সবেই ছিল নদীকেন্দ্রিক। আবহমান কাল থেকে নদী, মাটি এবং মা বাংলার প্রাণের স্পন্দন ছিল। নদীকে কেন্দ্র করে হাজারো জনপদ গড়ে উঠে প্রাচীন সভ্যতায়।
     বহু কালব্যাপী বাংলার ইতিহাস – ঐতিহ্য সম্বলিত পদ্মা, মেঘনা, সুরমা, কর্ণফুলী, গোমতী, করতোয়া, ধলেশ্বরী , ডাকাতিয়া, যমুনাসহ ছোট – বড় শত শত নদী এদেশের বুকে ধারণ করে আছে। বাংলার মা এবং মাটির সাথে নদীকে এদেশের মানুষ তাদের আত্মার অস্তিত্বে মিশে নিয়েছেন।
    প্রাচীন বাংলার রাজদরবার সমূহ এককথায় নদীকে ঘিরে তাদের শাসনব্যবস্থা পরিচালনা করতো। নবাব  সলিমুল্লাহ, মোগল সম্রাট শায়েস্তা খাঁ, ঈসা খাঁ, কিংবা উপমহাদেশের একমাত্র মহিলা নবাব ফয়জুন্নেছা আমলও কিন্তু নদীকেন্দ্রিক বিদ্যমান ছিল। প্রজারা তাদের সহ সহ খাজনা আদায়ের জন্য নোঙর নিয়ে বের হতো ঘাট থেকে ঘাটে। প্রজারা বিকালের আগে সকল খাজনা আদায় করে সন্ধায় রাজদরবারে একত্রিত হতো।
    প্রাচীন জনপদে নদীকে ঘিরে গোটা ভারতবর্ষ শাসন হয়েছে। সময়ের পালাক্রমে আজকের আধুনিক সভ্যতা হারিয়ে ফেলেছে ইতিহাস – ঐতিহ্যের সে সোনালী অতীত। আজ নদীর সাথে সাথে সোনালী আশঁ পাঠের চাষটা হারিয়ে যেতে বসেছে। এপার বাংলা থেকে ওপার বাংলার একমাত্র যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিলো নৌপথ। এমনকি ভিনদেশে যাওয়ার মতো ছিলো না কোনো দূরপাল্লার যানবাহন, নৌকা, স্টিমার, জাহাজে করে একদেশ থেকে অন্য দেশে পারি জমাতো বনিকেরা।
    বর্তমানকালে আমাদের নদী সমূহ দেখলে খুবই কষ্ট হয়। কত সুন্দর সাজানো ছিলো আমাদের নদীর প্রবাহমান স্রোতগুলো, যা আজ বিপন্ন। অবৈধভাবে নদী ভরাট করে মাফিয়ারা এদেশের মাঝে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের সাথে আমাদের স্বাভাবিক জীবন প্রবাহ নিশ্চিহ্ন করে দিচ্ছে।
     প্রতিনিয়ত কেড়ে নিচ্ছে এক একটি জীবন্ত নদীকে। অবৈধ দখলদার সাথে আমাদের নদী রক্ষা কমিশনসহ সরকারের নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় যেন আজ অসহায়। মাঝে বিআইডব্লিউটিএর কার্যক্রমে খানিকটা আশার আলো জ্বালিয়ে আবারো থমকে যায় অগোচরে। আমাদের কিছু সামাজিক সংগঠন নদী বাঁচাও আন্দোলন কে সময়ের সাথে সাথে তীব্রভাবে মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিচ্ছে।
    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১২:৩১ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১০ জুন ২০২১

    seradesh.com |

    advertisement
    শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০ 
    advertisement

    সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : সাদেকুল ইসলাম | সম্পাদক : আবু সাঈদ

    ঢাকা অফিসঃ বাড়ি #৫ (১ম তলা) রোড #০ কল্যাণপুর, ঢাকা-১২০৭, অফিস ঢাকা রোড সান্তাহার ৫৮৯১
    ফোন : 01767 938324 (মফস্বল) 01830 359796 (সম্পাদক) | E-mail : seradeshmoff@gmail.com, news@seradesh.com

    ©- 2021 seradesh.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।

    %d bloggers like this: